বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ইং, বাংলা ১৯, মাঘ ১৪২৯
  • sahin
  • ২ বছর আগে

জো বাইডেন: ক্ষমতার প্রথম ১০০ দিনে ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্টের অর্জন কী?

জো বাইডেন: ক্ষমতার প্রথম ১০০ দিনে ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্টের অর্জন কী?

প্রেসিডেন্ট পদে জো বাইডেনের প্রথম ১০০দিনে তার অর্জনের ঝুলি অর্ধেক ভর্তি হয়েছে এবং অর্ধেক খালি রয়েছে।

এক অর্থে বলা যায় তিনি ভালই করছেন। তিনি ও তার মিত্ররা কংগ্রেসে করোনাভাইরাস মোকাবেলার জন্য একটি থোক আর্থিক প্রস্তাব পাশ করিয়েছেন। দ্বিতীয় আরেকটি বিশাল অর্থ তহবিল পাশ করানোর কাজেও অগ্রগতি হচ্ছে। এটি কয়েক ট্রিলিয়ন ডলারের ব্যয়বরাদ্দ যেটি বাইডেন প্রশাসন সার্বিকভাবে ব্যাখ্যা করছে "অবকাঠামো" খাতের ব্যয় হিসাবে।

জনমত জরিপে দেখা যাচ্ছে, আমেরিকার গরিষ্ঠসংখ্যক জনগণ মি. বাইডেনকে সমর্থন করছে। ডোনাল্ড ট্রাম্প তার প্রেসিডেন্ট মেয়াদে এই সময় যেখানে ছিলেন তার থেকে অনেকটা এগিয়ে আছেন জো বাইডেন।

মি. বাইডেনকে তার ক্যাবিনেটের শীর্ষ পদগুলোতে নিয়োগের ক্ষেত্রে বড়ধরনের কোন সমস্যায় পড়তে হয়নি। বিচার বিভাগেও তিনি খুব বেশি নতুন মুখ আনেননি।

অনেক আমেরিকানই প্রশাসনিক কাজকর্ম তিনি যেভাবে স্থিরতার সাথে কিন্তু সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য রেখে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন সেটা পছন্দ করছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট মেয়াদে অবিরত যে নাটকীয় পরিস্থিতি দেখা গেছে, তার পর মি. বাইডেনের ধীরস্থির প্রশাসনিক স্টাইলে অনেকেই স্বস্তিবোধ করছেন।

তবে আমেরিকান প্রেসিডেন্টদের পারফরমেন্সের ইতিহাস দেখলে মি. বাইডেনের জনপ্রিয়তার মাপকাঠি কিন্তু নিচের দিকে, যেটা তার অর্জনের ঝুলিতে একটা নেতিবাচক দিক।

তিনি দুই দলের মধ্যে ঐক্য প্রতিষ্ঠার এবং "এই গৃহযুদ্ধের" অবসান ঘটানোর কথা বলেছিলেন। কিন্তু তিনি যেসব আইন প্রণয়ন করতে চাইছেন, তাতে এখনও কংগ্রেসের রিপাবিলকান সদস্যদের সমর্থন তিনি পাননি। তার অভিবাসন নীতির বাস্তবায়ন হয়েছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে এবং ডান ও বাম দুদিক থেকেই তিনি সমালোচনার শিকার হয়েছেন।

স্বাস্থ্য পরিষেবা, শিক্ষা ব্যবস্থা এবং বন্দুক নিয়ন্ত্রণের মত বিষয়গুলোতে তার নীতি কতটা সাফল্য আনতে পারবে - তা এখনও অনিশ্চিত।

ট্যাগস:

জো বাইডেন

এ জাতীয় আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়